সর্বশেষ
রবিবার ২৮শে চৈত্র ১৪২৭ | ১১ এপ্রিল ২০২১

করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬ কোটি ছাড়াল

বুধবার, নভেম্বর ২৫, ২০২০

25.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিভিন্ন দেশে ইতোমধ্যে তাণ্ডব শুরু হয়ে গেছে।গত একদিনেও যার শিকার হয়েছেন প্রায় সাড়ে ৫ লাখ মানুষ। এরমধ্যেই বিশ্বজুড়ে এ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৬ কোটি। এতে করে মৃতের সংখ্যা ১৪ লাখ ১৪ হাজারে দোরগোড়ায় পৌঁছেছে। তবে অনেকটা পিছিয়ে সুস্থতার হার। 

করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, বুধবার (২৫ নভেম্বর) সকাল পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ১৪ লাখ ১৪ হাজার ৬২১ জনের এবং আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ কোটি ৯৯ হাজার ৭৭৫ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪ কোটি ১৫ লাখ ৪৯ হাজার ৯৩৬ জন।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ২১৮টি দেশ  অঞ্চলে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

এর মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সবকটি অঙ্গরাজ্যেই দীর্ঘ হয়ে চলেছে করোনা রোগীর সংখ্যা। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ২৯ লাখ ৫৫ হাজার ৭ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৬৫ হাজার ৮৯১ জনের।

করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় দ্বিতীয় এবং মৃতের সংখ্যায় তৃতীয় অবস্থানে আছে ভারত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৯২ লাখ ২১ হাজার ৯৯৮ জন। এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন এক লাখ ৩৪ হাজার ৭৪৩ জন।

প্রাণহানিতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ও সংক্রমণে তিনে থাকা ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত করোনার শিকার ৬১ লাখ ২১ হাজারের বেশি। মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৭০ হাজার ১৭৯ জনের।

দ্বিতীয় তরঙ্গে মহামারি গতি বাড়ছে যুক্তরাজ্যে। এমতাবস্থায় নতুন করে চার সপ্তাহের লকডাউন চলছে সেখানে। এখন পর্যন্ত সেখানে করোনা হানা দিয়েছে ১৫ লাখ ৩৯ হাজার মানুষের দেহে। এর মধ্যে প্রাণ ঝরেছে ৫৫ হাজার ৮৩৮ জনের। 

একইপথে ইউরোপের আরেক দেশ ইতালি। দ্বিতীয় দফায় ক্রমেই করোনা ভয়াবহ রূপ নেয়ায় শুক্রবার (৬ নভেম্বর) থেকে সেখানে লকডাউন জারি হয়েছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১৪ লাখ ৫৫ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে প্রাণহানি ঘটেছে ৫১ হাজার ৩০৬ জনের। সুস্থতা লাভ করেছেন এক-তৃতীয়াংশ রোগী। 

মেক্সিকোয় করোনার ভুক্তভোগী ১০ লাখ  ৪৯ হাজারের বেশি। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ১ হাজার ৯২৬ জনের। মৃত্যু হারে যা যেকোন দেশের তুলনায় সর্বোচ্চ। 

সুস্থতার দিক থেকে প্রথম অবস্থানে আছে ভারত (৮৬ লাখ ৪১ হাজার ৪০৪ জন), দ্বিতীয় অবস্থানে আছে যুক্তরাষ্ট্র (৭৬ লাখ ৩৬ হাজার ৬৮৪ জন) এবং তৃতীয় অবস্থানে আছে ব্রাজিল (৫৪ লাখ ৭৬ হাজার ১৮ জন)।

এদিকে, বাংলাদেশের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী আজ মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৫১ হাজার ৯৯০ জন মানুষ। এর মধ্যে ৩ লাখ ৬৬ হাজার ৮৭৭ জন সুস্থতা লাভ করলেও প্রাণহানি ঘটেছে ৬ হাজার ৪৪৮ জনের।


ঢাকা, বুধবার, নভেম্বর ২৫, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // এস বি এই লেখাটি ৪৬২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন