সর্বশেষ
বুধবার ১লা বৈশাখ ১৪২৮ | ১৪ এপ্রিল ২০২১

সালমানের ছবিতে যিশু সেনগুপ্ত

রবিবার, ডিসেম্বর ২৭, ২০২০

23.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

সালমান খানের ছবিতে যিশু সেনগুপ্ত। তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে পর্দায় দর্শক মাতিয়ে চলেছেন ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা যিশু সেনগুপ্ত। মাঝখানে অনেকটা সময় বিরতি থাকলেও ফিরে এসে চুটিয়ে কাজ করছেন তিনি।

গেল কয়েক বছর ধরে তুমুল ব্যস্ত সময় পার করছেন এই নায়ক। তবে শুধু নিজেকে কলকাতায় আটকে রাখেননি। গণ্ডি পেরিয়ে কাজ করেছেন বলিউড সিনেমাতেও। প্রায়ই বলিউড সিনেমায় দেখে মেলে এই তারকার। সালমান খানের ‘অন্তিম’ সিনেমায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় দেখা যাবে বাঙালি অভিনেতাকে। টলিউড কিংবা বলিউড, দুই ইন্ডাস্ট্রিতেই আপাতত চুটিয়ে কাজ করছেন অভিনেতা যিশু সেনগুপ্ত। বাদ যায়নি দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিও। সেখানেও ইতিমধ্যেই শিকে ছিঁড়ে ফেলেছেন যিশু। একাধারে তিনি যেমন হিন্দি ওয়েব সিরিজে কাজ করছেন, তেমনই মূলধারার বলিউড সিনেমাতেও তাঁর অভিনয় নজর কাড়ছে দর্শকদের। বাংলা ইন্ডাস্ট্রির কাজও রয়েছে তাঁর হাতে। গতকালই বড়দিনে শিবু-নন্দিতার উইন্ডোজ প্রোডাকশন হাউসের তরফে অভিনেতা সঙ্গে নয়া ছবি ‘বাবা বেবি ও’র ঘোষণা করা হয়েছে। এবার শোনা গেল, বলিউডের সুপারস্টার ভাইজানের সিনেমায় অভিনয় করবেন যিশু সেনগুপ্ত।

সদ্য শুরু হয়েছে ‘অন্তিম’-এর শুটিং। যিশুও এখন শুটিংয়ের জন্য ঘন ঘন মুম্বইতে উড়ে যাচ্ছেন। তা কেমন চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি? সূত্রের খবর, সালমানের এই সিনেমায় যিশু সেনগুপ্তকে দেখা যাবে নেতিবাচক চরিত্রে। উল্লেখ্য, এর আগে মহেশ ভাট পরিচালিত ‘সড়ক ২’তেও শেডি চরিত্রে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। বক্স অফিসে সেই সিনেমার ভরাডুবি হলেও যিশুর অভিনয় কিন্তু বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছিল। সালমানের সঙ্গে ইতিমধ্যেই শুটিং করার অভিজ্ঞতা সঞ্চার করেছেন যিশু সেনগুপ্ত। 

বলিউড ভাইজান সালমান খানের ‘অন্তিম’ সিনেমায় খল নায়কের চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি। গত ১৫ নভেম্বর থেকে সালমানের সঙ্গে কাজ শুরু করেছেন যিশু। এই নায়ক সম্পর্কে যিশু বলেন, ‘সালমান ফ্লোরে খুব চুপচাপ থাকেন। পাক্কা পেশাদার। তবে চিরঞ্জীবি স্যারের মতো কাছে টানেন না। কিন্তু মানুষ হিসেবে খুব ভাল।’

শুধু তাই নয়, বলিউড পেরিয়ে এবার নাম লিখিয়েছেন দক্ষিণী সিনেমাতেও। তিনি কাজ করছেন ‘আচার্য’ সিনেমায়, যেখানে তার সঙ্গে রয়েছেন দক্ষিণী সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির মেগাস্টার চিরঞ্জীবী।

মেগাস্টার সম্পর্কে যিশু বলেন, ‘আমি অভিভূত। এত বড় স্টার! দেখলে একদম বোঝা যায় না। আমি ফ্লোরে গেলাম, উনি হয়তো বসেছিলেন, আমাকে দেখেই উঠে দাঁড়িয়ে গেলেন তিনি। শুধু তাই নয়, যতক্ষণ না আমার চেয়ার এল উনি দাঁড়িয়েই রইলেন।মেগাস্টার, অথচ কী অমায়িক মানুষ তিনি। চাইলেও সবাই উনার মতো হতে পারবে না। উনার সাথে কাজ করতে গিয়ে অনেক কিছুই দেখেছি, শিখেছি।


ঢাকা, রবিবার, ডিসেম্বর ২৭, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // এস বি এই লেখাটি ৬৭৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন