সর্বশেষ
বুধবার ১৯শে ফাল্গুন ১৪২৭ | ০৩ মার্চ ২০২১

কলাবাগানে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ শেষে হত্যার অভিযোগ

শুক্রবার, জানুয়ারী ৮, ২০২১

22.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

রাজধানীর কলাবাগানে ইংলিশ মিডিয়াম মাস্টারমাইন্ড স্কুলের ‘ও’ লেভেল (১০ম) শ্রেণির ছাত্রী আনুশকাহ নূর আমিনকে (১৮) ধর্ষণের পর হত‌্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন‌্য ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর্থীকে গুরুতর অবস্থায় আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতলে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতলে নিয়ে যায়।

কলাবাগান থানা পরিদর্শক (তদন্ত) আসাদুজ্জামান বলেন, আনুশকা নামের ওই শিক্ষার্থী কলবাগানে তার প্রেমিক দিহানের বাসায় যান। সেখানে অজ্ঞান হয়ে পড়লে দিহান নিজেই তাকে হাসপাতালে আনেন। তাদের মধ্যে দুই মাস ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলে প্রাথমিকভাবে তিনি জানিয়েছেন।

ওই কিশোরীর চাচা শরীফ মাহমুদ বলেন, সকালে তাকে কলাবাগানের এক বাসায় ডেকে নিয়ে যায় তারই এক বান্ধবী। সেখানে উপস্থিত থাকা তার বন্ধুরা মিলে তাকে শারীরিক নির্যাতন করে এক পর্যায়ে হত্যা করে। পরবর্তীতে বিষয়টি জানাজানি হলে তারা নিজেরাই মেয়েটিকে অচেতন অবস্থায় ধানমন্ডির আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতালে নিয়ে যায়।

নিহতের পরিবার জানায়, গ্রুপ স্টাডির কথা বলে আনুশকাকে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে গ্রুপ স্টাডির কথা বলে তাকে অভিযুক্তের কলাবাগানের ডলফিন গলির বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। ধর্ষণের পর রক্তক্ষরণ হলে নির্যাতিতাকে আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতালে নিয়ে যান অভিযুক্ত নিজেই। এরমধ্যেই স্বজনদের কাছে খবর আসে, মারা গেছেন ওই শিক্ষার্থী।

পুলিশ জানায়, খবর পেয়ে হাসপাতাল থেকেই আটক করা হয় ধর্ষককে। পরে আরো একই স্থান থেকে আরো তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়। নির্যাতিতার পরিবারের দাবি এর আগেও একই ঘটনা ঘটিয়েছে রাজধানীর ম্যাপেল লিফ স্কুলের 'এ' লেভেল পড়ুয়া এ শিক্ষার্থী। 


ঢাকা, শুক্রবার, জানুয়ারী ৮, ২০২১ (বিডিলাইভ২৪) // এস বি এই লেখাটি ৭০৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন