সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ২০শে ফাল্গুন ১৪২৭ | ০৪ মার্চ ২০২১

কলার যত গুনাগুন

মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৯, ২০২১

211.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

কলা অনেকেরই প্রিয় ফলের মধ্যে একটি। যেকোন কালেই কলা পাওয়া যায়। নিয়মিত কলা খেলে দেহের নানা ঘাটতি পূরণ করে আমাদের সুস্থ থাকায় সহায়ক হবে। এটি বিভিন্ন রোগের বিরুদ্ধে প্রতিরোধক্ষমতা অর্জনেও সহায়ক। কলা শুধু সুস্বাদুই নয়, এর রয়েছে অনেক উপকারিতা-

পুষ্টিগুণ: কলাতে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন সি ও বি৬। একটি সাধারণ কলা আপনার দৈনিক চাহিদার ১৫ শতাংশ ভিটামিন সি ও ৩৩ শতাংশ ভিটামিন বি৬-এর চাহিদা মেটাতে পারে। এছাড়া এতে ম্যাঙ্গানিজ, পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম ও কপার রয়েছে।

১. পটাসিয়ামে পূর্ণ এ ফলটি হার্টকে সুস্থ ও সবল রাখে। ইউএস ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের মতে, কলায় উচ্চ মাত্রায় পটাসিয়াম ও স্বল্প মাত্রায় সোডিয়ামের উপস্থিতি উচ্চ রক্তচাপ থেকে কার্ডিওভাস্ক্যুলার ব্যবস্থাকে সুরক্ষা দেয়।

২. কলায় প্রচুর পরিমাণে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ উপাদান ট্রিপ্টোফ্যান রয়েছে, যা বিষন্নতা দূর করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে।

৩. কলার ভিটামিন বি৬ উপাদান সুনিদ্রায় সহায়ক। আর কলায় থাকা ম্যাগনেসিয়াম মাংসপেশীকে শিথিলে ভূমিকা রাখে।

৪. নিয়মিত কলা খাওয়ার অভ্যাস কিডনির ক্যান্সার থেকে আপনাকে সুরক্ষা দেয়। প্রতি সপ্তাহে ৪ থেকে ৬টি কলা খাওয়ার ফলে কিডনির ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিকে অর্ধেক হ্রাস করে।

৫. হজমের জন্য দারুণ উপকারী কলা। কারণ, কলায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণ আঁশ, যা আপনার হজমশক্তিকে বাড়ায় ও সুস্থ রাখে।

৬. কলায় আছে ভিটামিন-বি৬। ওজন কমাতে ও টাইপ-২ ডায়াবেটিস প্রতিরোধে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে এ ভিটামিনটি।

৭. যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ন্যাশনাল ইনস্টিটিউটস অব হেলথের মতে, ঠিক গাজরের মতো কলাও দৃষ্টিশক্তির জন্য বিশেষভাবে উপকারী। কারণ, কলায় রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন-এ, যা আপনার চোখকে সুরক্ষা দেয়, দৃষ্টিশক্তি স্বাভাবিক রাখে এবং রাতের অন্ধকারে দেখার ক্ষেত্রে চোখের ক্ষমতাও বৃদ্ধি করে।

৮. শরীরের পেশির সুস্থতার জন্যও কলা বেশ উপকারী। ব্যায়ামের আগে কিংবা পরে কলা খান এটি আপনার পেশীর সমস্যা দূর করবে এবং পায়ের মজবুত পেশী গঠনে সাহায্য করে।


ঢাকা, মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৯, ২০২১ (বিডিলাইভ২৪) // এস বি এই লেখাটি ৩৭১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন